Header Border

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩শে মে, ২০২৪ ইং | ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল) ৩২.৯৬°সে
শিরোনাম
সিরাজগঞ্জ/ বিপুল ভোটের ব্যবধানে মুক্তির জয়, তাড়াশে মনি সিরাজগঞ্জে ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার সাংবাদিক মহির উদ্দিন আর নেই রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ফটোগ্রাফি সোসাইটির কমিটি গঠিত জিনের বাদশা প্রতারক চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার, ৬টি সোনালী রংয়ের মুর্তি উদ্ধার সিরাজগঞ্জ/ মাটির নিচে চাপাপড়া শ্রমিককে ২ ঘন্টাপর জীবিত উদ্ধার সিরাজগঞ্জ সদরে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীকে শোকজ থানার ভিতর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর ওপর হামলা, শোকজ আমিনুল ইসলাম বৃদ্ধ বয়সে সঙ্গ মেটাতে বৃদ্ধাশ্রমের ভূমিকা বাড়ছে-দিপু মনি বেলকুচি/ থানা চত্বরে হট্টগোল, চেয়ারম্যান প্রার্থীর ১০ কর্মী গ্রেফতার

মহাসড়কে ঈদে মহাআতঙ্ক মোটরসাইকেল

নিজস্ব প্রতিবেদক :

আসন্ন ঈদ যাত্রায় দেশের প্রায় প্রতিটি সড়কেই মোটরসাইকেলের দাপট বাড়বে ৷ সেটা বিগত বছরের তুলনায় কয়েক গুণ বেশি হতে পারে ৷ তাতে প্রাণহানি বাড়ার আশঙ্কাও করা হচ্ছে ৷ মোটরসাইকেলকে বাংলাদেশে গণপরিবহণ বিবেচনা করায় এই সংকট তৈরি হয়েছে বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের ৷

বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির তথ্য মতে, গত ঈদে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের ৪৩ শতাংশ ছিলেন মোটরসাইকেল দুর্ঘটনার শিকার ৷ এবার সেটা আরো অনেক বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে ৷ কিন্তু বিআরটিএ মনে করছে নাগরিকদের কাছে চাহিদা আছে বলেই মোটরসাইকেল ব্যবহার বাড়ছে ৷

ঈদে মোটরসাইকেলের কারণেই অনেক বেশি মানুষ সহজেই গ্রামের বাড়ি যেতে পারবেন ৷ বিআরটিএ এর নিয়ম নীতি মেনে চললেই দুর্ঘটনা অনেক কমে যাবে ৷ তবে যাত্রী কল্যাণ সমিতি ও বিশ্লেষকরা মনে করেন, গণপরিবহণ ব্যবস্থা সঠিকভাবে গড়ে না ওঠা যানজটের কারণেই মানুষ মোটরসাইকেল নির্ভর হয়ে পড়ছে ৷ তাদের মতে মোটরসাইকেল গণপরিবহণ হতে পারে না ৷

বাংলাদেশ রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের হিসাবে গেল মার্চ মাসে সারা দেশে ৫৫৮টি সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন ৫৭৯ জন ৷ এর মধ্যে শুধু মোটরসাইকেল দুর্ঘটনাতেই মারা গেছেন ২২১ জন ৷ শতকরা হিসেবে ৩৭.৫২ ভাগ মারা গেছেন মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ৷ ঈদে ট্রেন, বাস ও লঞ্চের টিকিট নিয়ে নৈরাজ্য হওয়ার কারনে অনেক মানুষ গণপরিবহণে বাড়ি যেতে পারেন না ৷ তারা বিকল্প হিসেবে মোটরসাইকেলকেই বেছে নেন ৷

আর মোটরসাইকেল অন্য যে কোনো যানবাহনের চেয়ে শতকরা ৩০ ভাগ বেশি ঝুঁকিপূর্ণ ৷ মহাসড়কে এই মোটরসাইকেল অন্য যানবাহনের জন্যও ঝুঁকি তৈরি করে৷

যাত্রী কল্যাণ সমিতি সূত্রে জানা যায়, গত দুই বছরে ঢাকাসহ সারাদেশে নতুন ১০ লাখেরেও বেশি মোটরসাইকেল যুক্ত হয়েছে ৷ এখন রাস্তায় মোটরসাইকেলের সংখ্যা কমপক্ষে ৪০ লাখ ৷ এর মধ্যে অন্তত ২৫ লাখ মোটরসাইকেল ঈদ যাত্রায় অংশ নেবে বলে তাদের আশঙ্কা ৷ নাম প্রকাশ না করার শর্তে যাত্রী কল্যাণ সমিতির একজন কর্মকর্তা জানান, ‘‘ঢাকা থেকে ঢাকার বাইরে মোটরসাইকেলের কমপক্ষে ১২ লাখ ট্রিপ হতে পারে ঈদে ৷

ঢাকার বাইরে এক জেলা থেকে আরেক জেলায় ৭০ লাখ ট্রিপ হতে পারে ৷ এর সঙ্গে যুক্ত হবে আরো ৪০ লাখ ইজি বাইক ৷ ফলে এবার ঈদযাত্রা সবার জন্য আগের তুলনায় আরো ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ার আশঙ্কা আছে৷” ঈদে যাওয়া আসা হিসেবে বাস, ট্রেন, লঞ্চ ও বিমানসহ সব ধরনের যানবাহন মিলে ৬০ কোটি ট্রিপ হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে ৷

তারমধ্যে ৪০ কোটি ট্রিপ হবে সড়ক পথে৷ সড়ক পথের এই ট্রিপের ১০ শতাংশ হবে মোটরসাইকেলে৷ ‘‘মহাসড়কে মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণহীন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা গেলে শতকরা ৫০ ভাগ দুর্ঘটনা কমানো সম্ভব৷” গণপরিবহণের অপর্যাপ্ততার কারণেই মোটরসাইকেলের ওপর নির্ভরতা বাড়াছে ৷

মানুষ যানজট এড়াতেও মোটরসাইকেল ব্যবহার করে ৷ কিন্তু এটা বাংলাদেশ ছাড়া বিশ্বের আর কোথাও গণপরিবহণ হিসেবে ব্যবহার হয়না ৷ কারণ মোটরসাইকেলে দুর্ঘটনার ঝুঁকি ৩০ ভাগ বেশি৷” ইতি মধ্যে জাপানে ২৫ লাখ মোটরসাইকেল কমিয়ে ১০ লাখ করা হয়েছে ৷ ভিয়েতনাম, কম্বোডিয়ায় মোটরসাইকেল কমিয়ে ফেলায় দুর্ঘটনা কমে গেছে ৷ কিন্তু বাংলাদেশ দেশে উৎসাহিত করা হয় ৷ রাইড শেয়ারিং-এ মোটরসাইকেলকে অনুমতি দেয়া হয়েছে ৷

ঈদের আগে এখন মোটরসাইকেল কেনায় ডিসকাউন্ট দেয়া হচ্ছে ৷ কিস্তিতে দেয়া হয় ৷ দেশতো মোটরসাইকেলে ভরে যাবে ৷ ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালের চিকিৎসক ড. শুভ প্রসাদ দাস কিছু দিন আগে জানিয়ে ছিলেন, তারা সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত যেসব রোগী পান তাদের অধিকাংশই মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত হন ৷ তাদের জরিপেও ৩৭ ভাগ বলা হলেও বাস্তব চিত্র এর চেয়ে আরো ভয়াবহ ৷ এটা ৫০-৬০ ভাগ হবে বলে অনেক বিশেষজ্ঞ মনে করেন ৷ মোটরসাকেল দুর্ঘটনায় যাদের মাথায় আঘাত লাগে তাদের অধিকাংশকেই বাঁচানো যায় না । এই হাসপাতালটিতে ২৪ ঘণ্টায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত কমপক্ষে ২০০ জন ভর্তি হন ৷ তাদের মধ্যে ৯০-১০০ জনের অপারেশন লাগে ৷

বাকিদের প্লাস্টার করে ম্যানেজ করা যায় ৷ এর মধ্যে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত যারা বেঁচে যান তাদের বড় একটি অংশ পঙ্গু হয়ে যায় ৷ হাত-পা কেটে ফেলতে হয়৷” এখন মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত নারীদের সংখ্যাও দিন দিন বাড়ছে । বিআরটিএর রোড সেফটি বিভাগের দাবি, চাহিদা আছে বলেই মোটরসাইকেলের ব্যবহার বাড়ছে, এটা খারাপ কিছু নয় ৷ এই ঈদে যারা গণপরিবহণে যেতে পারবেন না তারা মোটরসাইকেলে যাবেন, এটাইতো স্বাভাবিক ৷ তা না হলে তারা কীভাবে যাবেন? আর মোটরসাইকেলে রাইড শেয়ারিং-এর অনুমতি আইনের আওতাই দেয়া হয়েছে ৷

কিন্তু লাইসেন্স, প্রশিক্ষণ ও হেলমেট ছাড়াই অনেকে মোটরসাইকেল চালাচ্ছেন ফলে দুর্ঘটনা বাড়ছে ৷ এ ব্যাপারে বিআরটিএ এর আইন আছে, নির্দেশনাও আছে ৷ সেগুলো মেনেই মোটরসাইকেল চালাতে হবে ৷ আইনের বাইরে গেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে ।

মোঃ ইলিয়াছ মোল্লা/এসবাংলা

SHARE

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

সিরাজগঞ্জে মোবাইল কিনে না দেওয়ায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা
সিরাজগঞ্জে দুটি বাল্যবিবাহ পড়ালেন সাবেক ইউপি সদস্য
বাগবাটি ইউপিতে জমি নিয়ে বিরোধে ভাইকে হত্যার হুমকি, থানায় অভিযোগ
সিরাজগঞ্জে তিনজনকে হত্যার দায়ে যুবকের মৃত্যুদন্ড 
সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ডের তদন্তে দীর্ঘসূত্রিতা লজ্জা দায়িত্বহীনতা এবং পক্ষপাতিত্বের ঈঙ্গিত বহন করে
সিরাজগঞ্জে বাস ও সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে মা-মেয়ে নিহত

আরও খবর

Android App