Header Border

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং | ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল) ৩৭.৯৬°সে
শিরোনাম
বাগবাটি ইউপিতে জমি নিয়ে বিরোধে ভাইকে হত্যার হুমকি, থানায় অভিযোগ সিরাজগঞ্জ/ আমাদের বাংলা সাহিত্যের বিশাল ভান্ডার আছে- হেনরী সিরাজগঞ্জ/ স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় যুবক গ্রেফতার সিরাজগঞ্জে পুলিশের উপর হামলা, মদ ও অস্ত্রসহ আওয়ামীলীগ নেতার স্ত্রী আটক সিরাজগঞ্জ পৌর যুবলীগকে ঢেলে সাজাতে আহবায়ক হতে চান যুবনেতা আবু মুসা ঈদের আগের দিনেই ফাঁকা বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম মহাসড়ক ঈদযাত্রা/ ২৪ ঘন্টায় বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায় ৩ কোটি নাড়ীর টানে ঘরমুখো মানুষের স্বস্তির ঈদযাত্রা সিরাজগঞ্জ/ ট্রাক-পিকআপে ঝুকি নিয়ে বাড়ি আসছে স্বপ্ল-আয়ের মানুষ সিরাজগঞ্জ/ ঈদযাত্রায় মহাসড়কে খুলে দেওয়া হলো ৩ ওভারপাস এক সেতু

ঈদে উত্তরাঞ্চলের ১৬ জেলার যাত্রীদের ভোগান্তির শঙ্কা

জেলা প্রতিনিধি,সিরাজগঞ্জ:
উত্তরবঙ্গের প্রবেশদ্বার সিরাজগঞ্জ। ২২ জেলার পরিবহন চলাচলে একমাত্র সিরাজগঞ্জ-ঢাকা মহাসড়ক। এ মহাসড়কে হাজার হাজার পরিবহনের চাপ থাকে সারা বছরেই। বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম মহাসড়কে চার লেনে উন্নিত করতে চলছে উন্নয়ন কাজ । ফলে মহাসড়কটিতে প্রায় দীর্ঘ দিন ধরেই থেমে থেমে যানজট দেখা দিচ্ছে। কখনও কখনও এই যানজট তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। আসন্ন ঈদযাত্রায় অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে যানজটের ভয়াবহতা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

রোববার (১১ এপ্রিল) মহাসড়কের কড্ডার মোড়, হাটিকুমরুল গোলচত্বর, সয়দাবাদ ও নলকা সেতু এলাকায় দেখা যায়, থেমে থেমে ধীর গতিতে চলছে যানবাহন। হাটিকুমরুল গোলচত্বর থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম গোলচত্বর পর্যন্ত প্রায় ২০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে মহাসড়কে স্বাভাবিক গতিতে চলতে পারছেনা যানবাহন গুলো। এই পরিস্থিতে মহাসড়কটিতে যানবাহনের সংখ্যা বাড়তে থাকলেই ভয়বহ যানজটের সৃষ্টি হয়ে থাকে ।
অপর দিকে হাটিকুমরুল গোলচত্বর থেকে চান্দাইকোনা পর্যন্ত অন্তত ১৯ কিলোমিটার  জুড়ে খানা খন্দে ভরা।সেখানেও স্বাভাবি ভাবে যানচলাচল করতে পারছে না।

সরজমিনে জানা যায়, বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিমপাড় থেকে মহাসড়কের চার লেনে উন্নীত করার কাজ চলমান থাকায় যানবাহনকে ধীরগতিতে চলতে হচ্ছে। মহাসড়কের কড্ডার মোড় এলাকায় একটি উড়াল সড়কের নির্মাণকাজ চলমান থাকায় সেখানে যানবাহনের গতি কমাতে হয়। এ ছাড়া পুরোনো ও জরাজীর্ণ নলকা সেতুর কিছুটা সংস্কার করা হলেও এখনো সেখানে ধীরগতিতে যানবাহন পারাপার করার কারণে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে উত্তরাঞ্চলের যাত্রীদের। সেতুটির পাশেই আরেকটি সেতুর নির্মাণকাজ চলমান থাকায় এর স্থায়ীভাবে সংস্কার করা হচ্ছে না। এসব কারণে এই মহাসড়কে ঈদের সময় অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে বাড়তে পারে যানজটের ভয়াবহতা।

সিরাজগঞ্জ ভাই ভাই এন্টার প্রাইজের ট্রাক চালক, জুয়েল রানা ও এস আই এন্টার প্রাইজের বাস চালক মো. স্বাধীন বলেন, বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিমপাড় মহাসড়ক নিয়ে অনেক চিন্তিত থাকি। ঢাকা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত স্বাভাবিক ভাবেই চলতে পারি। সেতুর পশ্চিমপাড় থেকেই থেমে থেমে যানজট ও ধীর গতিতে চলতে হচ্ছে।

তারা আরও বলেন, দীর্ঘদিন যাবত উন্নয়নকাজ চলমান থাকা এবং এক লেন বন্ধ থাকায় প্রায়ই যানজট পোহাতে হয়। আবার সামনে ঈদ, যানবাহনের চাপ তিনগুন বাড়বে। ফলে মহাসড়কে ভয়াবহ যানজট সৃস্টি হবে বলে আমরা শঙ্কায় আছি।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লুৎফর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে ২২ জেলার পরিবহন চলাচল করে। এ কারণে মহাসড়কটিতে সব সময়ই যানবাহনের চাপ থাকে। যার ফলে মহসড়কে থেমে থেমে চলতে হয়। নলকা সেতু ও হাটিকুমরুল গোলচত্বরের পূর্বপাশের ছোট সেতুটি মহাসড়কের তুলনায় বেশি সরু হওয়ায় গাড়ির গতি কমাতে হচ্ছে। এছাড়াও মহাসড়কটি চার লেনে উন্নীতকরণের উন্নয়নকাজ চলমান থাকায় যানবাহনের ধীরগতির কারণে থেমে থেমে যানজটের সৃষ্টি হয়। ঈদে ঘরমুখো মানুষের কারনে অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে এই মহাসড়কটিত যানজট ভয়াবহ আকার ধারন করে ।

মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মীর আক্তার হোসেন লিমিটেডের প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান বলেন, ঈদের সময় মহাসড়কটিতে অতিরিক্ত যানবাহনের চাপের কথা চিন্তা করে চলমান উন্নয়নকাজে ক্ষতিগ্রস্ত সড়কগুলো বিটুমিনপাথর মিশিয়ে সাময়িক সময়ের জন্য সচল করা হয়েছে। আশা করা যায়, চলমান উন্নয়নকাজের জন্য মহাসড়কে কোনো যানজট হবে না।

সওজের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. দিদারুল আলম জানান, আসন্ন ঈদযাত্রায় যানজট নিরসনে দ্রুত নলকা সেতুর কাজ শেষ করে আমরা আশা করছি ঈদের আগেই নতুন সেতুটি স্বচল করতে পারবো । অপর দিকে চান্দাইকোনা থেকে হাটিকুমরুল পর্যন্ত মহাসড়কে যানবাহন অবাধে চলাচল করতে চলমান উন্নয়ন কাজের পাশেই সহজতর বিকল্প সড়কের ব্যবস্থা করা হয়েছে । ঈদযাত্রা যানজট মুক্ত করতে বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহনের কাজ চলমান রয়েছে বলে জানালেন তিনি।

 

এইচএমএ/এসবাংলা

SHARE

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ডের তদন্তে দীর্ঘসূত্রিতা লজ্জা দায়িত্বহীনতা এবং পক্ষপাতিত্বের ঈঙ্গিত বহন করে
বাংলাদেশে বিনিয়োগে যুক্তরাজ্যের ব্যবসায়ীদের আমন্ত্রণ প্রধানমন্ত্রীর
 নতুন আইজিপি কে হচ্ছেন
হু হু করে বাড়ছে চালের দাম
জুনে সড়কে মোটরসাইকেলে বেশি দুর্ঘটনা
মহাসড়কে ঈদে মহাআতঙ্ক মোটরসাইকেল

আরও খবর

Android App