Header Border

ঢাকা, বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪ ইং | ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল) ২৬.৯৬°সে
শিরোনাম
সিরাজগঞ্জ/ বিপুল ভোটের ব্যবধানে মুক্তির জয়, তাড়াশে মনি সিরাজগঞ্জে ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার সাংবাদিক মহির উদ্দিন আর নেই রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ফটোগ্রাফি সোসাইটির কমিটি গঠিত জিনের বাদশা প্রতারক চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার, ৬টি সোনালী রংয়ের মুর্তি উদ্ধার সিরাজগঞ্জ/ মাটির নিচে চাপাপড়া শ্রমিককে ২ ঘন্টাপর জীবিত উদ্ধার সিরাজগঞ্জ সদরে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীকে শোকজ থানার ভিতর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর ওপর হামলা, শোকজ আমিনুল ইসলাম বৃদ্ধ বয়সে সঙ্গ মেটাতে বৃদ্ধাশ্রমের ভূমিকা বাড়ছে-দিপু মনি বেলকুচি/ থানা চত্বরে হট্টগোল, চেয়ারম্যান প্রার্থীর ১০ কর্মী গ্রেফতার

চর বড়ধুল দাখিল মাদ্রাসার সুপারের বিরুদ্ধে নিয়োগ ব্যাণিজ্যের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক॥
সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার চর বড়ধুল দাখিল মাদ্রাসায় সহকারী গ্রন্থাগারিক কাম ক্যাটালগার, নৈশ প্রহরী ও আয়া পদে লক্ষ লক্ষ টাকা নিয়োগ ব্যাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে সুপার মো. আলমগীর হোসেনের বিরুদ্ধে।

গতকাল সোমবার (১ মার্চ) সরেজমিনে চর বড়ধুল দাখিল মাদ্রাসায় যাওয়ার পর সহকারী গ্রন্থাগারিক কাম ক্যাটালগার পদে আবেদনকারী মো. ইউসুফ আলী অভিযোগ করে বলেন, আমি ভালো পরীক্ষা দিয়েছিলাম। নিয়োগের জন্য প্রথম হয়েও নিয়োগবঞ্চিত করা হয়েছে আমাকে। সুপার আলমগীরে সাথে ৬ লক্ষ টাকা বিনিময়ে চাকুরী দেওয়া কথা ছিলো। সেই মোতাবেক আমার নিকট থেকে ৩ লক্ষ টাকা নেন। কিন্তু রেজাউল করিম নামের এক প্রার্থীর নিকট থেকে ১০ লক্ষ টাকা নিয়ে তাকে নিয়োগ দিয়েছে। পরে আমি জানতে পারলে সুপার আমার ৩ লক্ষ টাকা ফেরত দেয়।

এদিকে আয়া পদে একই গ্রামের আবেদনকারী সম্পা বলেন, সুপার মো. আলমগীর হোসেনের আমাকে চাকুরী দেওয়া নামে ২ লক্ষ টাকা নেন। পরে অপর প্রার্থী স্বপ্না খাতুন নামের একজনকে ১০ লক্ষ টাকা নিয়ে তাকে নিয়োগ দিয়েছে। সুপার আমার টাকা চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন ঠান্ডুর নিকট ২ লক্ষ টাকা ফেরত দেয়। সম্পা আরো বলেন, নৈশ প্রহরী পরে আমিনুল ইসলাম নামের এক প্রার্থীর নিকট থেকে ১০ লক্ষ টাকা নিয়ে তাকে নিয়োগ দিয়েছে। আমাদের টাকা নাই, তাই আমাদের চাকুরী নেই।

এদিকে চর বড়ধুল দাখিল মাদ্রাসায় বিদ্যুৎশাহী সদস্য শরিফ রেজা অভিযোগ বলেন, গত ৩ ডিসেম্বর ইনকেলাব পত্রিকায় সহকারী গ্রন্থাগারিক কাম ক্যাটালগার, নৈশ প্রহরী ও আয়া পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। পরে সেই মোতাবেক সহকারী গ্রন্থাগারিক কাম ক্যাটালগার পদে ৯জন, নৈশ প্রহরী পদে ৫জন ও আয়া পদে ৪জন প্রার্থী আবেদন করলে খাতা কলমে গ্রন্থাগারিক ৬জন, নৈশ প্রহরী পদে ৩জন ও আয়া পদে ২জন উপস্থিত দেখিয়ে বাকি প্রার্থীদের বাদ দেওয়া হয়।
সুপার কৌশলে নিয়োগ পরীক্ষা সিরাজগঞ্জ শহরের ভিক্টোরিয়া হাই স্কুলে পছন্দমত ডিজির প্রতিনিধি দিয়ে শেষ করে। এই আমরা বিষয়টি জানিনা। রেজাল্ট প্রকাশ না করে নিজের পছন্দ মত প্রার্থীকে নিয়োগ পত্র ও যোগদান করায় সুপার।
তিনি আরো বলেন, আমরা জানতে পেরেছি সুপার ৩টি প্রার্থীর নিকট থেকে ৩০ লক্ষ টাকা বিনিময়ে যোগ্য প্রার্থীদের বাদ দিয়ে অপেক্ষাকৃত অযোগ্য প্রার্থীদের নিয়োগ দিয়েছে সুপার আলমগীর হোসেন।

এ ব্যাপার চর বড়ধুল দাখিল মাদ্রাসায় সুপার আলমগীর হোসেন বলেন, সকল নিয়োগ পরীক্ষা সরকারী নিয়মনীতি মোতাবেক অনুষ্ঠিত হয়েছে। যারা নিয়োগ পরীক্ষায় প্রথম স্থান অধিকার করেছে তাদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। টাকা লেনদের বিষয়টি সঠিক নয়।

 

SHARE

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

সিরাজগঞ্জ/ বিপুল ভোটের ব্যবধানে মুক্তির জয়, তাড়াশে মনি
সিরাজগঞ্জে ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার
সাংবাদিক মহির উদ্দিন আর নেই
রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ফটোগ্রাফি সোসাইটির কমিটি গঠিত
জিনের বাদশা প্রতারক চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার, ৬টি সোনালী রংয়ের মুর্তি উদ্ধার
সিরাজগঞ্জ/ মাটির নিচে চাপাপড়া শ্রমিককে ২ ঘন্টাপর জীবিত উদ্ধার

আরও খবর

Android App