Header Border

ঢাকা, বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং | ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল) ৩৪.৯৬°সে
শিরোনাম
সিরাজগঞ্জ/ আমাদের বাংলা সাহিত্যের বিশাল ভান্ডার আছে- হেনরী সিরাজগঞ্জ/ স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় যুবক গ্রেফতার সিরাজগঞ্জে পুলিশের উপর হামলা, মদ ও অস্ত্রসহ আওয়ামীলীগ নেতার স্ত্রী আটক সিরাজগঞ্জ পৌর যুবলীগকে ঢেলে সাজাতে আহবায়ক হতে চান যুবনেতা আবু মুসা ঈদের আগের দিনেই ফাঁকা বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম মহাসড়ক ঈদযাত্রা/ ২৪ ঘন্টায় বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায় ৩ কোটি নাড়ীর টানে ঘরমুখো মানুষের স্বস্তির ঈদযাত্রা সিরাজগঞ্জ/ ট্রাক-পিকআপে ঝুকি নিয়ে বাড়ি আসছে স্বপ্ল-আয়ের মানুষ সিরাজগঞ্জ/ ঈদযাত্রায় মহাসড়কে খুলে দেওয়া হলো ৩ ওভারপাস এক সেতু সিরাজগঞ্জে চোর চক্রের ৪ সদস্য আটক, চুরির মালামাল উদ্ধার 

কামারখন্দ থানায় হামলা, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ ১৫জনের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
কামারখন্দ থানায় অপহরণ মামলার আসামীকে ছিনিয়ে নিতে থানায় হামলা চালানোর অভিযোগে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মামুন শেখসহ অজ্ঞাতনামা ১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। ঘটনার সময়ই ছাত্রলীগ নেতা মামুনকে আটকও করা হয়েছে। এস.আই বিপ্লব বাদী হয়ে গত মঙ্গলবার রাতে মামলাটি দায়ের করেন।
বাদীর এজাহারে উল্লেখ করেছেন, গত মঙ্গলবার বিকেলে ছাত্রলীগ নেতা এনামুল হক বিজয় হত্যা মামলার বাদী বড় ভাই রুবেলকে অপহরণের অভিযোগ এনে তার বাবা কাদের প্রমানিক থানায় মামলা দায়ের করেন। এরপরই মামলার এজাহারভুক্ত আসামী কামারখন্দ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পারভেজ রেজা পাভেলকে গ্রেপ্তার করা হয়। সংবাদ পেয়ে ১০০/ ১৫০জন জনতাকে নিয়ে থানার সামনে হাজির হয়ে পাভেলকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করতে থাকে। তাদের উস্কানীমূলক বক্তব্য ও শ্লোগানে উপস্থিত জনতা উত্তেজিত হয়ে উঠে এবং ছাত্রনেতা মামুন যে কোন মূল্যে গ্রেপ্তার পাভেলকে ছিনিয়ে নেয়ার হুমকি দেয়।
২ ঘন্টাব্যাপী এ অবস্থা চলার একপর্যায়ে পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে মামুনের নেতৃত্বে অজ্ঞাতনামা ১৪/১৫ থানার থানা কম্পাউন্ডের ভিতরে প্রবেশ করে এবং গ্রেপ্তার পাভেলকে ছিনিয়ে নেয়ার জন্য মূল ভবনের ভিতরে প্রবেশের চেষ্টা করে। এতে বাধা দিলে তারা পুলিশের উপর চড়াও হয় এবং ধস্তাধস্তি শুরু করে। এ অবস্থায় লাঠিচার্জ করে তাদের ছাত্রভঙ্গ করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে অন্যরা পালিয়ে গেলেও মামুনকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে নিহত বিজয়ের বাবার দায়ের করা অপহরণ মামলারও প্রধান আসামী।

প্রসঙ্গত, ২ আগষ্ট বিজয় হত্যা মামলার বাদী বড় ভাই রুবেলকে কামারখন্দ বাজার এলাকা থেকে মাইক্রোবাসে করে অপহরণ করা হয়। হত্যা মামলা তুলে নিতে এবং নিহত বিজয়ের ব্যবহৃত মোবাইল ও মেমোরী কার্ডের জন্য চাপ দেয় অপহরণকারীরা। একপর্যায়ে রুবেলের চিৎকারে বেকায়দায় পড়ে গিয়ে অপহরণকারীরা তাকে বগুড়ার মাঝিরা ক্যান্টরমেন্ট এলাকায় মাইক্রোবাস থেকে ফেলে দেয়। স্থানীয় একটি মসজিদের মুসুল্লীরা তাকে অসুস্থ্য অবস্থায় পায়। শাহজাহানপুর থানা পুলিশ তাকে সেখান থেকে উদ্ধারের করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেন।

এরআগে ২৬ জুন শহরে সাবেক মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের স্মরণে দোয়া মাহফিলে যোগ দিতে যাওয়ার পথে জেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ও কামারখন্দ সরকারী হাজী কোরপ আলী ডিগ্রি কলেজ শাখার সভাপতি বিজয়কে মাথায় কুপিয়ে আহত করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৯দিন পর তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় বড় ভাই রুবেল বাদী হয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করেন। এ মামলায় বর্তমানে ৩জন জেলহাজতে রয়েছে।

এ অবস্থায় নিহত বিজয় স্মরণে মিলাদ মাহফিলকে কেন্দ্র করে ৭জুন ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এসব ঘটনায় পাল্লাপাল্টি আরও ৪টি মামলা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে দলের মধ্যে বিভক্তি দেখা দেয়ায় কেন্দ্রীয় কমিটির হস্তক্ষেপে ৮ জুলাই থেকে জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয় তালা বন্ধ এবং সকল অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের দলীয় কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়েছে। ডিবি পুলিশ বর্তমানে হত্যা মামলাটির তদন্ত করছেন।

SHARE

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

সিরাজগঞ্জ/ আমাদের বাংলা সাহিত্যের বিশাল ভান্ডার আছে- হেনরী
সিরাজগঞ্জ/ স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় যুবক গ্রেফতার
সিরাজগঞ্জে পুলিশের উপর হামলা, মদ ও অস্ত্রসহ আওয়ামীলীগ নেতার স্ত্রী আটক
সিরাজগঞ্জ পৌর যুবলীগকে ঢেলে সাজাতে আহবায়ক হতে চান যুবনেতা আবু মুসা
ঈদের আগের দিনেই ফাঁকা বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম মহাসড়ক
নাড়ীর টানে ঘরমুখো মানুষের স্বস্তির ঈদযাত্রা

আরও খবর

Android App